ইসলামি আইনে ধর্ষকদের বিচার চান গোলাম রাব্বানী

সোশ্যাল মিডিয়া

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ডাকসুর সাবেক জিএস গোলাম রাব্বানী সোমবার দুপুরে এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে লেখেন-

‘লাগামহীন দুর্নীতি ও ধর্ষণ প্রতিনিয়ত চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে, বিদ্যমান আইন ও এর দুর্বল প্রয়োগনীতি এই দুটি মারাত্মক অপরাধ দমনে কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারছে না! দুর্নীতির মাধ্যমে জনগণের ভ্যাট-ট্যাক্সের অর্থ আত্মসাত, রাষ্ট্র বিরোধী ও ধর্ষণকে মানবতা বিরোধী অপরাধ বিবেচনা পূর্বক সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান রেখে কঠোর আইন প্রণয়ন ও এর কার্যকারিতা নিশ্চিত করতে না পারলে, বর্তমান সরকারের সকল ইতিবাচক কাজ ও গৌরবান্বিত সাফল্যে এ বিষফোঁড়া দুটো ‘এক মন দুধে কয়েক ফোটা গো-মূত্র’ এর ন্যায় সকল অর্জন ম্লান করে দেবে।

সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত দুর্নীতিবাজ ও ধর্ষকের শাস্তি ইসলামী অনুশাসন মোতাবেক হলে এহেন অপরাধ দমনে কার্যকর ভূমিকা রাখবে।
মহানবী (সা.) বলেছেন, ‘আমার মেয়ে ফাতেমা চুরি করলেও আমি তার হাত কেটে দেব।’

আর ধর্ষকের শাস্তি হোক, প্রকাশ্যে পাথর নিক্ষেপ করে, ফায়ারিং স্কোয়াডে গুলি করে বা ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ড!,

(গোলাম রব্বানীর ফেইসবুক পেইজ থেকে সংগৃহীত)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *