জয় দিয়েই সিরিজ শুরু করলো বাংলাদেশ

খেলাধুলা

বাংলাদেশ যে জয় দিয়েই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজটা শুরু করতে যাচ্ছে সেটা আগেই আন্দাজ করা যাচ্ছিল। প্রথম ওয়ানডেতে আগে ব্যাটিং করা সফরকারীরা গুটিয়ে যায় মাত্র ১২২ রানেই। পরে আকেল হোসেইনের স্পিনে কিছুটা ভুগে ৩৩.৫ ওভারেই ছয় উইকেটের কাঙ্খিত জয়টা নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ। এই জয়ে তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেল বাংলাদেশ।

বুধবার (২০ জানুয়ারি) মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ১২২ রানের জবাব দিতে নেমে বাংলাদেশের শুরুটা ছিল বড্ড সাবধানী। দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন কুমার দাস কোনো ঝুঁকি নিতে চাননি। প্রথম দশ ওভারে ৩৯ রান তুলেছেন দুজন। তবে তরুণ আকেল হোসেইনের বিপক্ষে ভুগতে হচ্ছিল বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের। হঠাৎ করেই বড় বড় টার্ন পাচ্ছিলেন তরুণ এই স্পিনার।

জয় নিশ্চিত করার আগে বাংলাদেশ যে চারজান ব্যাটসম্যানকে হারিয়েছে তার তিনজনই এই আকেলের শিকার- লিটন দাস, সাকিব আল হাসান ও নাজমুল হোসেন শান্ত। সিরিজের শুরুটা দাপুটে হলেও পরবর্তী ম্যাচে এই আকেলকে নিয়ে নিশ্চয় ভাবতে হবে বাংলাদেশি টিম ম্যানেজমেন্টকে। জেসন মোহাম্মদের নির্বিশ এক বলে নিজের ভুলে এলবিডব্লিউ হয়েছেন তামিম ইকবাল।

৪৭ রানের ওপেনিং জুটির পর লিটন ৩৮ বলে ১৪ রান করে ফিরলে তিনে নেমে ১ রান করতে পেরেছেন তরুণ নাজমুল শান্ত। চারে নেমে সময় নিচ্ছিলেন সাকিব আল হাসান। সময় নিতে নিতেই আকেলের কোটার শেষ বলটি উইকেটে টেনে এন বোল্ড হয়েছেন। তার একটু আগে তামিম ফিরেছেন ৬৯ বলে ৭টি চারে ৪৪ রান করে। বাকি সময়ে ক্যারিবিয়ানদের আর সুযোগ দেননি মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ।

বাংলাদেশের ছয় উইকেটের জয় নিশ্চিত হওয়ার সময় মুশফিক ৩১ বলে ১৯ রানে অপরাজিত ছিলেন। মাহমুদউল্লাহ ১৬ বলে ৯ রানে।

এর আগে নিষেধাজ্ঞা থেকে ফেরা সাকিব আল হাসান ও অভিষিক্ত পেসার হাসান মাহমুদের আগুনে পুড়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শুরুটা করেছিলেন তারকা পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। শুরুতেই দুই উইকেট তুলে নিয়ে ক্যারিবিয়ানদের ব্যাটিং লাইনআপটাকে আলগা করেছিলেন দ্য ফিজ। পরে চেপে ধরেন সাকিব-মাহমুদ।

৩২.২ ওভারে ১২২ রানে গুটিয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সাকিব ৭.৪ ওভার বোলিং করে মাত্র ৮ রান খরচায় উইকেট নিয়েছেন ৪টি। অভিষিক্ত মাহমুদ ৬ ওভারে ২৮ রান খরচায় নিয়েছেন ৩ উইকেট। মোস্তাফিজ ৬ ওভারে ২০ রান খরচায় নিয়েছেন দুই উইকেট।

করোনার কারণে গত মাস আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বাইরে ছিল বাংলাদেশ। তারপর শুরুটা হলো দারুণ। তামিম ইকবালের ওয়ানডে অধিনায়কত্বের অভিষেকটাও হলো দারুণ। গত মার্চে পূর্নমেয়াদে অধিনায়কত্ব পেয়ে আজই প্রথম নেতৃত্ব দিতে নেমেছিলেন তামিম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *