পূজামণ্ডপে কুরআন অবমাননাকারীদের কঠোর শাস্তি দিতে হবে- বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস সিলেট জেলা শাখা

সংবাদ

ভয়েসটাইমস : কুমিল্লায় হিন্দুদের পূজামণ্ডপে পবিত্র কুরআন অবমাননায় জড়িত দোষীদের কঠোর শাস্তির দাবী জানিয়েছেন বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস সিলেট জেলা শাখার সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ ইকবাল হুছাইন ও সাধারণ সম্পাদক হাফিজ মাওলানা আতিকুর রহমান।

আজ (১৩ অক্টোবর) এক বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, কুমিল্লার নানুয়া দীঘির পাড়ের পূজা মণ্ডপে পবিত্র কুরআনকে যেভাবে অবমাননা করা হয়েছে, তা কোনো মুসলমান বরদাশত করতে পারে না।কুরআনের অবমাননা করে মুসলমানদের কলিজায় আঘাত করা হয়েছে,মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে হামলা করা হয়েছে।কোন ধর্মের অনুষ্ঠানে অন্যধর্মের পবিত্র কিতাবকে অবমাননা করা অন্যায় ও চরম ঘৃণ্য কাজ। তাই দ্রুত দোষীদের গ্রেফতার করে কঠোর শাস্তি দিতে হবে। না হয় যে কোনো অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে এর দায় দায়িত্ব সরকারকেই নিতে হবে।

নেতৃদ্বয় আরও বলেন, ৯০ ভাগ মুসলমানের দেশে হিন্দুরা তাদের ধর্মীয় উৎসব পালন করে যাচ্ছে। কোথায়ও মুসলমানদের পক্ষ থেকে কোনো বেঘাত সৃষ্টি করা হয়নি। এর নজির পৃথিবীতে বিরল। অথচ একটি গোষ্ঠী দেশ ও ইসলামের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র এবং ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে এ ধরণের ঘটনার অবতারণা করছে। বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার পায়তারা দেশের মানুষ কোনোভাবেই মেনে নিবে না। সুতরাং এ ষড়যন্ত্রকারীদের চিহ্নিত করুন, তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত কঠোর প্রদক্ষেপ নিন।

নেতৃদ্বয় বলেন, ঘটনা প্রকাশিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রশাসন পূজা মন্ডপ বন্ধ না করায় তাওহিদী জনতা ঈমানের দাবীতে রাজপথে নামলে তাদের উপর পুলিশের গুলি বর্ষণ ও ন্যাক্কারজনক হামলা ৯০ ভাগ মুসলমানের দেশে কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।আমরা তৌহিদি জনতার উপর পুলিশি গুলি বর্ষণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *