সিলেটে শিল্পকলা একাডেমীর ৪৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

শিল্প ও সাহিত্য সারাদেশ

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির ৪৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বর্ণাঢ্য আয়োজন আর বর্ণিল পরিবেশনার মধ্য দিয়ে সিলেট জেলা শিল্পকলা একাডেমি উদযাপন করলো দিনটি। এ উপলক্ষে বুধবার বিকাল ৪টায় নগরীর পূর্ব শাহী ইদগাহস্থ সিলেট জেলা শিল্পকলা একাডেমি থেকে একটি আনন্দ শোভাযাত্রা বের করা হয়।

এরপর একাডেমি মিলনায়তনে আয়োজন করা হয় আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। ‘অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রায় শিল্প নিয়ে পৌঁছে যাবো আমরা উন্নতির শিখরে’ প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে আয়োজিত প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানটি কেক কেটে উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম।

জেলা কালচারাল অফিসার অসিত বরণ দাশ গুপ্ত-এর সভাপতিত্বে আলোচনা পর্বে আমন্ত্রিত বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মদনমোহন কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ ড. আবুল ফতেহ ফাত্তাহ; বাংলাদেশ নৃত্যশিল্পী সংস্থা সিলেটের সভাপতি অনিল কিষণ সিংহ; মহানগর মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের সাবেক কমান্ডার ভবতোষ রায় বর্মণ; বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সভাপতিমÐলীর সদস্য মোকাদ্দেস বাবুল ও সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের সভাপতি মিশফাক আহমদ মিশু।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত, নাট্যজন উত্তম সিংহ রহত ও নীলাঞ্জন দাশ টুকু প্রমুখ। নাট্যকর্মী ও আবৃত্তিশিল্পী আবু বকর মো. আল আমিনের উপস্থাপনায় পূর্ণিমা দত্ত রায়, জ্যোতি ভট্টাচার্য্য, প্রতীক এন্দ, শিনিয়া সাহা ঝুমা ও প্রতিভা রায় কেয়ার পরিচালনায় শিল্পকলা একাডেমির প্রশিক্ষণার্থীরা দলীয় সংগীত, আবৃত্তি ও নৃত্য পরিবেশন করেন। সাংস্কৃতিক পর্বে আমন্ত্রিত সংগঠন হিসেবে ছন্দনৃত্যালয় ও একক পরিবেশনায় ছিলেন সংগীতশিল্পী সুমাইয়া ইসলাম শোভা ও পল্লবী দাস মৌ।

এছাড়াও জাতীয় নাট্যোৎসবের অংশ হিসেবে সন্ধ্যা ৭টায় একাডেমির মঞ্চে মঞ্চস্থ হয় জেলা শিল্পকলা একাডেমি সিলেটের নাটক ‘বাঘের শিন্নি’। নাটকটির রচনা ও নির্দেশনায় ছিলেন ভবতোষ রায় বর্মণ।

জেআর/