সীমিত সংখ্যক মুসল্লি নিয়ে মসজিদে তারাবিহ চালু থাকবে

জাতীয়

 

ভয়েস টাইমস: আসন্ন রমজানে দেশের সব মসজিদে তারাবির নামাজ চালু থাকবে। ইমাম, মুয়াজ্জিন, হাফেজসহ সর্বমোট ১২ জন মুসল্লি এতে অংশ নিতে পরবেন।

বৃহস্পতিবার বিকালে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আবদুল্লাহ গণমাধ্যমকে জানান করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতিতে ১০ জন মুসল্লি ও দুইজন হাফেজসহ মোট ১২ জনের অংশগ্রহণে রমজান মাসে মসজিদগুলোতে এশা ও তারাবির নামাজ আদায়ের সুযোগ থাকবে।

এর সঙ্গে ইতিপূর্বে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের জারিকৃত মসজিদে জুমা ও জামাত বিষয়ক নির্দেশনা কার্যকর থাকবে।এছাড়া রমজান মাসে ইফতার মাহফিলের নামে কোন ধরনের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা যাবেনা।

এ বিষয়ে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় বিস্তারিত নির্দেশনাসহ শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) একটি সার্কুলার জারি করবে বলেও জানান তিনি।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে গত ৬ এপ্রিল ধর্ম মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে দেশের মসজিদগুলোকে মুসল্লি সংখ্যা সীমিত করা হয়। মসজিদে ইমাম, মুয়াজ্জিন ও খাদেমদের সমন্বয়ে পাঁচ ওয়াক্তের জামাতে সর্বোচ্চ পাঁচজন করে এবং জুমার জামাতে ১০ জন করে অংশ নেয়ার অনুমতি দেয়া হয়।

এর আগে আল হাইআতুল উলইয়া লিল জামিআতিল কওমিয়্যাহ বাংলাদেশের পক্ষ থেকে আল্লামা আহমদ শফীসহ দেশের শীর্ষ আলেমরা আসন্ন রমজানে তারাবিহ নামাজ,জামাত,জুমার নামাজের জন্য শর্তসাপেক্ষে দেশের মসজিদগুলোতে স্বাভাবিকভাবে নামাজ পড়ার জন্য মসজিদ উন্মুক্ত করে দিতে সরকারকে আহবান জানান।কিন্তু করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় সরকারের তরফ থেকে এই আহবানে সাড়া মেলে নি।